কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।। সম্মানিত ভিজিটর যেকোন প্রকারের যোগাযোগের জন্য অনুগ্রহ করে "যোগাযোগ মেনু" অথবা "Facebook Chat" বাটন ব্যবহার করুন।।

রহমত কি সর্ব প্রথম বাইতুল্লাহ তথা কা’বা ঘরের উপর অবতীর্ণ হয়

প্রশ্ন: তাবলিগ জামাতের একজন বলেছেন: “সর্ব প্রথম রহমত অবতীর্ণ হয় বাইতুল্লাহ তথা কা’বা ঘরের উপর তারপর সেখান থেকে অন্যান্য মসজিদে তা ভাগ করা হয়।” এ হাদীসটি কি সহীহ?

উত্তর:
আমার ক্ষুদ্র অনুসন্ধানে কোথাও এমন কোন হাদীস পাওয়া যায় নি।
কেউ কোন হাদীস পেশ করলে তার জন্য আবশ্যক হল, হাদীসের রেফারেন্স ও হাদীসের মান উল্লেখ করা এবং সর্তক হওয়া যে, যেন কোন মিথ্যা হাদীস যেন প্রকাশ না পায়। কারণ রাসূল সাল্লাম বলেছেন:
مَنْ كَذَبَ عَلَيَّ مُتَعَمِّداً فَلْيَتَبَوَّأْ مَقْعَدَهُ مِنَ النَّارِ” رواه البخاري
“যে ব্যক্তি ইচ্ছাকৃতভাবে আঁমার উপর মিথ্যারোপ করল (মিথ্যা হাদিস বর্ণনা করল), সে যেন জাহান্নামে নিজের ঠিকানা করে নিল।” (সহীহ বুখারী, অনুচ্ছেদঃ আম্বিয়াদের হাদিস, হাদীস নং ৩২৭৪)
তবে বাইতুল্লায় অবস্থানকারীদের উপর রহমত নাযিল সংক্রান্ত একটি হাদীস পাওয়া যায় কিন্তু তা সহীহ নয়। হাদীসটি নিম্নরূপ:
إن الله تعالى ينزل على أهل هذا المسجد – مسجد مكة – في كل يوم وليلة عشرين ومئة رحمة: ستين للطائفين، وأربعين للمصلين، وعشرين للناظرين ضعيف – رواه الطبراني في ” الأوسط ” (1 / 123 / 2) و” الكبير ” (11475)
“নিশ্চয় আল্লাহ তা’আলা এ মসজিদের (মক্কার মসজিদ) অধিবাসীদের জন্য প্র্যত্যেক দিনে ও রাতে একশত বিশটি রহমত নাযিল করেন। ষাটটি তাওয়াফ কারীদের জন্য, চল্লিশটি সালাত আদায়কারীদের জন্য আর বিশটি কা’বার প্রতি দৃষ্টিদান কারীদের জন্য।”
হাদীসটি য’ঈফ। (তাবারানী “আল-আওসাত” (১/১২৩/২) ও “আল-কাবীর” গ্রন্থে (১১৪৭৫))
আল্লাহু আলাম
▬▬▬▬▬●●●▬▬▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল মাদানি
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, সৌদি আরব।।

Share This Post
Menu
ইসলামী প্রশ্নোত্তর
Menu
error: