মহিলা ডাক্তারের জন্য কি পুরুষ রোগীর চিকিৎসা করা বৈধ হবে? এবং পুরুষ সহকর্মীদের সাথে কি ডাক্তারি পেশা করা যাবে?

প্রশ্ন: মহিলা ডাক্তারের জন্য কি পুরুষ রোগীর চিকিৎসা করা বৈধ হবে? এবং পুরুষ সহকর্মীদের সাথে কি ডাক্তারি পেশা করা যাবে?

উত্তর:
ইসলামী শরিয়ার সাধারণ বিধান হল, কোন নারীর জন্য পরপুরুষকে এবং কোন পুরুষের পর নারীকে স্পর্শ করা জায়েয নয়। তবে একান্ত প্রয়োজন হলে ভিন্ন কথা।
অর্থাৎ পুরুষ ডাক্তার পুরুষ রোগীদের আর মহিলা ডাক্তার মহিলা রোগীদের চিকিৎসা করবে- এটাই ইসলামী রীতি। কিন্তু পরিস্থিতি যদি এমন হয় যে, রোগীর চিকিৎসা জন্য কোন পুরুষ ডাক্তার নাই তাহলে এ অবস্থায় মহিলা ডাক্তার পূর্ণ পর্দা রক্ষা করে এবং যথাসম্ভব ফিতনা সৃষ্টির ব্যাপারে সর্তক থেকে পুরুষ রোগীর চিকিৎসা করতে পারে। কিন্তু পুরুষ ডাক্তার বিদ্যমান থাকা অবস্থায় মহিলাদের জন্য পরপুরুষ রোগীর গায়ে স্পর্শ করা বা পুরুষ ডাক্তারের সহকর্মী হিসেবে থাকা বৈধ নয়। কেননা, এতে ফিতনা সৃষ্টি বা হারামে পতিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

➖➖➖➖➖➖➖➖
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আবদুল জলীল মাদানি
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, KSA

Share This Post